এপার ওপার

 

 

বৃষ্টির জল সেত স্বর্গের ফসল, আসে আকাশ থেকে
জীবন চক্র শেষে, ফিরবে সে নিজ আবাসে, এঁকে বেঁকে।

দীঘি সেত মাটির গর্ত, জল পিপাসাই সব সময়, থাকে তৃষ্ণার্ত
নেই কোন সংশয় একদিন মরবে নিশ্চয়, জল পিপাসাতে
কারো সন্দেহ নেই তাতে।
স্বর্গের বারি রাখবে সে ধরি, কোন সে মতে!

শরীর মনেরই আধার, সেতো মাটি, আত্মাটাই কেবল খাটি।
স্বর্গ থেকে এসেছ তুমি, স্বর্গেই করবে গমন
মর্তের তাকে মাটি নেবে বুকে, বোঝ হে মন!

স্বর্গ থেকে এসেছে ওরে, দুদিনের তরে, তোমার মাটির ঘরে
স্বর্গে জন্ম স্বর্গেই বাস, স্বর্গই তাঁর আদি নিবাস।
স্বর্গেই সে করবে প্রত্যাগমন, শোন হে মন।

অবশেষে স্বর্গীয় বেশে, স্বর্গে যাবে সে ফিরে হেসে হেসে
বুকে বসি, বলিছে সে কথা ধুক ধুকিয়ে দিবানিসি।

হে অবুঝ মন, জানি তুমি পঞ্চইন্দ্রিয়ের ধণ
সেতো ক্ষয়িষ্ণু মাটি, তা দিয়ে লেপিছ হায়, যা স্বর্গীয় অক্ষয়!
আত্মা বলে ভাব যারে, সেতো তোমার মন,
করছো মোরে হয়রানী, খামাকা করে টানাটানি, আজীবন।

অবশেষে হায়! কেবলি মনের হয়েছে জয়
মন যা চায় কেবল কর তুমি তায়!
থাক ব্যস্ত দিবানিসি, মনকে দিতে তৃপ্তি বেশী বেশী,
বোঝনা আমার যাতনা, কখনো ভাবনা কি নিয়ে আমি খুশী!

ওপারে শুধু স্বর্গীয় স্বাদ, বাকি সব কিছু বাদ,
জানা নেই তা অনেকের, কেবল আছে জানা শুধু সাধকের।
জ্ঞানে নয় ধ্যানে, পাবে যে একবার সে অমৃতের আস্বাদ,
চাবে সে বারবার, এপারের সব মনে হবে বিস্বাদ।

এপারে যা কিছু হায়, সব মেপে বুঝে নিতে হয়,
অংকের নিয়মে তা শেষ হয়ে যায়।
অগনিত অসীম, ওপারের যা কিছু
নেই কোন ভাগ মাথা পিছু।

এপারের জীবন, এ বিশ্ব ভুবন, শুধু ফাঁকা অপেক্ষায়
পাবে কি পাবে না, আছে কিনা তাও অজানা
দ্বারের ওপারে গেলেই হায়, এপারের সব শেষ হয়ে যায়।

Category: Meaning of Life, Posts

Leave a comment

Your email address will not be published.